অবশেষে বার্সেলোনাতেই থাকছেন লিওনেল মেসি

0

সকল অস্থিরতার অবসান ঘটিয়ে আগামী মৌসুম পর্যন্ত তাকে বার্সেলোনাতেই থাকতে হচ্ছে জানালেন লিওনেল মেসি।

ক্রীড়াভিত্তিক ওয়েবসাইট গোলডট কমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ছয় বার ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসি নিজেই জানিয়েছেন এ কথা। এ ছাড়া স্কাই স্পোর্টস তাদের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আগস্টের শেষ সপ্তাহে ব্যুরোফ্যাক্সের মাধ্যমে বার্সার সঙ্গে চুক্তির একটি বিশেষ শর্ত ব্যবহার করে ফ্রি ট্রান্সফারে ক্লাব ছাড়ার যে বার্তা দিয়ে নাড়িয়ে দিয়েছিলেন ফুটবল বিশ্বের মনোযোগ, শুক্রবার সেটি থেকে সরে আসার কথা জানালেন মেসি। তিনি বলেছেন, ‘আমি ভেবেছিলাম এবং নিশ্চিত ছিলাম যে ইচ্ছে করলেই ক্লাব ছাড়তে পারি। সভাপতি সবসময় বলত, মৌসুম শেষে আমি সিদ্ধান্ত নিতে পারব যে আমি থাকব না চলে যাব।’

যদিও এর আগে বার্সেলোনা ছাড়া বা ম্যানচেস্টার সিটিতে যাওয়া, রিলিজ ক্লজ নিয়ে আবার লা লিগা কর্তৃপক্ষের মন্তব্য; স্বভাবতই গত কয়েকদিনের অবস্থা স্বস্তি দেয়নি ব্শ্বি ফুটবলের অন্যতম সেরা খেলোয়ার লিওনেলি মেসিকে। নিরবতা ভেঙে তিনি ফ্রি ট্রান্সফারে ক্লাব ছাড়ার সিদ্ধান্তের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়া বার্সেলোনা ও লা লিগার পর্যালোচনা ভুল বলে মন্তব্য করেছিলেন।

 শুক্রবার মেসির পক্ষে বিবৃতি দেন তার বাবা ও এজেন্ট হোর্হে মেসি। মেসি তার বিবৃতিতে বলেন, ‘বার্সেলোনা ও লা লিগার পর্যালোচনা ভুল। তাদের দেখানোও যুক্তি সম্পূর্ণ ভুল।’ হোর্হে মেসির পাঠানো বিবৃতিতে লা লিগা সভাপতি হাভিয়ের তেবাসকে উদ্দেশ করে কড়া সমালোচনাও করা হয়ে। বলা হয়েছে, ‘আপনার পর্যালোচনা পরিষ্কারভাবেই ভুল। ৭০ কোটি রিলিজ ক্লজের বিষয়টি আগের ক্লজে আছে, যেটা এখন আর কার্যকর নয়।’

লা লিগা দাবি করেছিল, ৭০০ মিলিয়ন ইউরো ক্লজ মানি দিয়েই বার্সেলোনা ছাড়তে হবে মেসিকে। তবে লা লিগার এ দাবি তুলে নেওয়ার জন্য মেসির বাবা চিঠি দিয়েছেন। মেসি দাবি করেন, ফ্রি ট্রান্সফারে বার্সেলোনা ছাড়তে চান। কিন্তু লা লিগা দাবি করে যে, মেসিকে অবশ্যই ক্লজ মানি পরিশোধ করে যেতে হবে।

গত রোববার এক বিবৃতিতে লা লিগা জানায়, বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দেওয়ার পর মেসির চুক্তির মেয়াদ কার্যকর ছিল। তবে বার্সেলোনার প্রাক-মৌসুমের কোনো কার্যক্রমে যোগ নেননি মেসি। বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষ জানায়, ক্লাব ছাড়ার একটি মাত্র উপায় রয়েছে মেসির সামনে, সেটি হলো- ক্লজ মানি ৭০০ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধ করতে হবে। তবে লা লিগার প্রেসিডেন্ট জাভিয়ের তেবাসের কাছে চিঠি দিয়েছেন মেসির বাবা।

সেখানে উল্লেখ করা হয়, রিলিজ ক্লজের অর্থ কার্যকর হতে পারে না। হোর্হে মেসি জানান, তারা জানেন না কোন ধরনের চুক্তি বিশ্লেষণ করা হয়েছে। কিসের ভিত্তিতে টার্মিনেশন ক্লজ কার্যকর হবে। ২০১৯-২০ মৌসুম শেষ হওয়ার পর খেলোয়াড় নিজেই চুক্তিতে থাকতে চাইছে না। তারা ভুল করছেন। এটি মোটেই কার্যকর হবে না। আগের ক্লজে এটি কার্যকর ছিল। সব ক্ষেত্রে নয়।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.