কোরবানির হাট যেন ‘অস্থির’ না হয়, ডিসিদের নির্দেশ

0
Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

কোরবানির পশুর হাট যেন কৃত্রিমভাবে অস্থিত না হয়ে উঠে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে এবার বাজারে যেসব পশু আসবে তাতে কৃত্রিমভাবে মোটাতাজা পশু কম থাকবে বলেও আশ্বস্ত করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার ডিসি সম্মেলনের তৃতীয় দিন সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এই নির্দেশ ও আশ্বাস দেন।

পরে মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, কোরবানির হাটে পশুর স্বাস্থ্যের বিষয়ে ডিসিদের নজর দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাটে যে পশুগুলো আসবে সেগুলোর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হবে। নিরাপদ ও সুন্দর স্বাস্থ্যের পশুগুলো যাতে কোরবানির জন্য যেতে পারে।

তিনি বলেন, কোথাও কেউ যাতে পশুর হাটে প্রভাব ফেলতে না পারে, জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসকই মূলত এটা নিয়ন্ত্রণ করবেন। আমাদের কর্মকর্তারাও থাকবেন, সহায়তা দিয়ে তাদের এটাকে নিয়ন্ত্রণে রাখার কথা বলা হয়েছে।

ক্ষতিকর ওষুধ ব্যবহার করে গরু মোটা-তাজাকরণের বিষয়ে এক প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, আগে স্টেরয়েড ব্যবহার করে গরু মোটাতাজা করা হত, ওই মাংস মানুষের জন্য ক্ষতিকর। এ বিষয়ে আমরা শতভাগ নিশ্চয়তা দিতে না পারলেও আমরা নিশ্চয়তা দিচ্ছি- এই দিক থেকে সন্দেহমুক্ত থাকতে পারেন।

নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেন, প্রতিটি গরুতে না হলেও আমাদের হিসেবের মধ্যে যারা রয়েছে সেখানে গরুর দৈনন্দিন খাবার কী- সেটাও আমাদের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা তদারকি করছেন। গরুর খাদ্যের বিকল্প যে পথ দেখানো হয়েছে, সেই পথে গরু ভাল মোটাতাজা হচ্ছে, সেখানে ওই খাবারের দরকার নেই।

বেশি লাভের আশায় জাতির ক্ষতি না করতে খামার মালিকদের বোঝানো হচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তোমরাও ব্যবসা কর, জাতিকে ভাল খাবার দাও। এভাবে মানুষ কিন্তু ফিরে আসছে। ফরমালিনযুক্ত মাছ এখন এক প্রকার নেই, এটাও কিন্তু মোটিভেশন।

প্রতি বছরই কোরবানির ঈদের আগে পশুবাহী ট্রাকে চাঁদাবাজি, প্রভাব খাটিয়ে যত্রতত্র হাট বসানো এবং হাটে ইজারাদারদের জোর খাটানোসহ নানা অনিয়ম নিয়ে খবর আসে সংবাদমাধ্যমে। এসব অনিয়মের কারণে পশুর দাম বেড়ে যায়, বাজারে তৈরি হয় অস্থিরতা।

প্রসঙ্গত, প্রাথমিকভাবে এবার ঈদে রাজধানীতে ২২টি গরুর হাট বাসানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। জোর-জবরদস্তি ঠেকাতে এবার কোরবানির পশুবাহী ট্রাকে হাটের নাম লিখে রাখার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে সরকার এবার কোরবানির ঈদের ছুটি রেখেছে ২১ থেকে ২৩ অগাস্ট। অর্থাৎ, ১২ অগাস্ট জিলহজ মাসের চাঁদ উঠলে ২২ আগস্ট বাংলাদেশের মুসলমানরা কোরবানির ঈদ উদযাপন করবেন।

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.