ঈদ সামনে রেখে বাড়ছে নিত্যপণ্যের দাম

0

ঈদের আগে বাড়তে শুরু করেছে নিত্যপণ্যের দাম। মাসের ব্যবধানে ১০ টাকা বেড়েছে প্যাকেটজাত পোলাউয়ের চালে। রমজানের শুরুতে কেজিপ্রতি ১৩০ টাকা বিক্রি হলেও এখন বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকায়। আর ভালোমানের খোলা পোলাউয়ের চাল বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকা।

বেড়েছে সেমাইয়ের দামও। ১০ টাকা বেড়ে ২০০ গ্রাম প্যাকেটের বনফুল ও কুলসুম সেমাই বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা।

এদিকে, বেশ কিছুটা বেড়েছে সবজির দাম। কেজিপ্রতি বেগুন বিক্রি হচ্ছে প্রায় ৮০ টাকা আর কাঁচা মরিচ ১২০ থেকে ১৪০ টাকা। প্রতি আলু বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা।

আজ শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

এছাড়া ৪০ টাকা কেজি টমেটো, পেঁপে, শালগম, মুলা, গাজর ও মিষ্টি কুমড়া বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া শসা ১৫ টাকা কেজি, ৫০ টাকা কেজি শিম বিক্রি হচ্ছে।

অন্যদিকে, ৬০ টাকা কেজি চিচিঙ্গা, পটল, ঢেঁড়স, কচুর লতি, বটবটি ও ধুনধুল বিক্রি হচ্ছে। মটরশুটি ১২০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি পিস চাল কুমড়া ৪০ টাকা, প্রতি পিস লাউ আকারভেদে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।পেঁয়াজের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ২৫-৩৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

চায়না রসুন ১০০ থেকে ১২০ টাকা কেজি, দেশি রসুন ৫০ টাকা কেজি, দেশি আদা ৮০ টাকা কেজি এবং চায়না আদা ৮০-১০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

ভোজ্যতেলের প্রতি লিটার ১৭০ টাকা, চিনি প্রতি কেজি ৮০-৮৫ টাকায়, প্যাকেট চিনি প্রতি কেজি ৮৫-৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এ সপ্তাহে দেশি মুশুরের ডালের দাম প্রতি কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে হয়েছে ১৩০ টাকা।

তবে ডিমের দাম কমেছে। প্রতি ডজন লাল ডিম ১০০ টাকা, ডজন প্রতি হাঁসের ডিম ১৫০-১৫৫ টাকায় এবং প্রতি ডজন দেশি মুরগির ডিম ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, ব্রয়লার মুরগির দাম কেজি প্রতি ৫-১০ টাকা বেড়ে হয়েছে ১৬৫-১৭০ টাকা। সোনালি মুরগি প্রতি কেজি ২৮০ টাকা, লেয়ার মুরগি কেজি প্রতি ২৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্রতি কেজি গরুর মাংস ৬৫০-৬৮০ টাকা এবং খাসির মাংস প্রতি কেজি ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.