থাইল্যান্ডে এক সেনা কর্মকর্তার এলোপাতাড়ি গুলিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২০ জন

0

এক সেনা কর্মকর্তার এলোপাতাড়ি গুলিতে থাইল্যান্ডে  নতুন করে আরও ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২০ জনে দাঁড়িয়েছে। আহতের সংখ্যা অনেক।

শনিবার দেশটির রাজধানী ব্যাংককের উত্তর-পূর্বে নাখন রাতচাসিমা শহরের কোরাট নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাদ দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে। এই ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, জাকরাফান্থ থোম্মা নামে সামরিক বাহিনীর ওই কর্মকর্তা প্রথমে তার কমান্ডিং অফিসারের ওপর হামলা চালিয়ে হত্যা করে। পরে সামরিক ক্যাম্প থেকে বন্দুক ও বিস্ফোরক চুরি করে। এরপর ওই ব্যক্তি কোরাট শহরের একটি বৌদ্ধ মন্দির এবং একটি শপিং সেন্টারে এলোপাথাড়ি গুলি চালায়।

এতে ঘটনাস্থলেই অন্তত ১২ জন প্রাণ হারান। পরে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে আরও ৮ জন মারা যান। তবে ঘাতক ওই সেনা সদস্যকে এখনো আটক করতে পারেনি দেশটির পুলিশ।

তিনি বর্তমানে শপিং সেন্টারের বেসমেন্টে লুকিয়ে থাকতে পারে বলে জানিয়েছেন থাই প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওই মুখপাত্র। তাকে খুঁজে বের করতে পুরো শপিং সেন্টারটি চারিদিক থেকে কর্তৃপক্ষ ঘেরাও করে রেখেছে। এরইমধ্যে শপিং সেন্টারের কাছে গোলাগুলির দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়েছে।

এই ঘটনার সময় ওই সেনাকর্মকর্তা ফেসবুকে লাইভ করে। তাছাড়া অস্ত্র হাতে সেলফিও তুলে। এরপর ফেসবুকে পোস্ট দেয়। সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটে করা ওই পোস্টে লিখে, আমি খুব ক্লান্ত।

সেনাবাহিনীর সেকেন্ড কমান্ডার লে. জেনারেল থান্যা ক্রিয়াটিসরন বলেন, আক্রমণকারীর নাম জাকরাফান্থ থোম্মা। সুরথহামপিঠক ক্যাম্পের সিপিএল হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তাকে আটক করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ ও সেনাবাহিনী।

এআই/আরকে

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.