আজ আখেরি মোনাজাতে শেষ হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব

0

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শেষ হচ্ছে রোববার। এদিন সকাল ১১টার পর অনুষ্ঠিত হবে আখেরি মোনাজাত। এতে অংশ নেবেন লাখ লাখ মুসল্লি। তারা মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে দু’হাত তুলে মুসলিম উম্মার ঐক্য, সুখ ও সমৃদ্ধি চাইবেন। এবার দ্বিতীয়বারের মতো বাংলায় মোনাজাত করা হবে।

মুসলিম উম্মাহর দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় সমাবেশ বিশ্ব ইজতেমার ৫৫তম আয়োজনের প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে দেশ-বিদেশের ৩৫ থেকে ৪০ লাখ মানুষ অংশ নেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। কাকরাইল মসজিদের ইমাম মাওলানা হাফেজ মোহাম্মদ যোবায়েরুল হাসান আজ সকাল ১১টার পরে যে কোনো সময় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বলে জানিয়েছেন ইজতেমা ময়দানের গণমাধ্যম সমন্বয়ক মুফতি জহিন ইবনে মুসলিম।

ইজতেমার প্রথম পর্বে অংশ নিতে তীব্র শীত ও কুয়াশা উপেক্ষা করে বৃহস্পতিবার রাত থেকেই টঙ্গীর তুরাগতীরে সমবেত হতে শুরু করেন মুসল্লিরা। শনিবার ফজরের নামাজের পর থেকেই বয়ানে বয়ানে মুখর হয়ে ওঠে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দান। ফজরের নামাজের পর আমবয়ান করেন সৌদি আরবের মাওলানা আবদুর রহমান, বাদ জোহর মাওলানা ইসমাইল, বাদ আসর ভারতের মাওলানা জুহাইরুল ইসলাম ও বাদ মাগরিব ওই দেশেরই মাওলানা ইব্রাহীম দৌলা। মূল মঞ্চ থেকে তাৎক্ষণিক বাংলায় তর্জমা করে তা শোনানো হয়।

ইজতেমা এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, আখেরি মোনাজাতে অংশ নেওয়ার জন্য হাজার হাজার মানুষ ইজতেমা ময়দানের আশেপাশে জড়ো হচ্ছেন। বিশ্ব ইজতেমা ময়দানের তাশকিল কামরার পাশে প্রতিবন্ধীদের ইজতেমায় অংশগ্রহণের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. আনোয়ার হোসেন জানান, আখেরি মোনাজাতকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। এ ছাড়া যান চলাচলেও কিছু নিয়ন্ত্রণ থাকবে। শনিবার মধ্যরাত থেকে গাজীপুরের টঙ্গী মহাসড়ক ও ইজতেমা ময়দানের আশপাশের এলাকায় সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হবে। মধ্যরাত থেকে মোনাজাত শেষে বিকেল পর্যন্ত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চান্দনা চৌরাস্তা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত, টঙ্গী-কালীগঞ্জ সড়কের মিরের বাজার থেকে স্টেশন রোড পর্যন্ত, কামারপাড়া থেকে আশুলিয়া পর্যন্ত এবং বিমানবন্দর থেকে টঙ্গী ব্রিজ পর্যন্ত সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.