আজ কোটালীপাড়া ও কাল টুঙ্গিপাড়ায় আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

0

আজ বুধবার ও আগামীকাল বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর নিজ নির্বাচনী এলাকা গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া ও টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে । এই দুই সম্মেলনকে কেন্দ্র করে কোটালীপাড়া ও টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী এখন উজ্জীবিত। ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে সামনে রেখে উপজেলা দুটি নতুন সাজে সেজেছে। নেতা কর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে কর্মচাঞ্চল্য। উপজেলা সদরসহ আশপাশ এলাকায় ব্যানার, ফেন্টুন ও পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে গেছে। নির্মাণ করা হয়েছে বিভিন্ন নেতার ছবি সম্বলিত অসংখ্য তোরণ। সেই সাথে মাইকিংও করা হয়েছে।

কমিটিতে পদ পেতে আবার কেউ পদ ধরে রাখতে গণভবনসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে। ইউনিয়ন ইউনিয়নে চলছে সভা সমাবেশ। পছন্দের নেতাদের সন্মানজনক পদে দেখতে অনেক কর্মী ব্যানার টাঙ্গিয়েছেন উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন হাটবাজারে, রাস্তার পাশে বা বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে।

 সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের উপস্থিত থাকবেন বলে দলীয় সুত্রে জানাগেছে। এ ছাড়াও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, শেখ হেলাল উদ্দিন (এমপি), বাহাউদ্দিন নাসিম (এমপি), শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা এস এম কামালসহ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের আরো বেশ কয়েকজন নেতা এ সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে।

প্রায় বছর পরে কোটালীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আর যে কারণে নেতা-কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা চোখে পড়ার মতো।

এদিকে আগামীকাল বৃহস্পতিবার টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে। টুঙ্গিপাড়া উপজেলা পরিষদ চত্বরের হেলিপ্যাডে বিশাল আকৃতির প্যান্ডেল তৈরী করা হয়েছে। এই সম্মেলনেও প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

টুঙ্গিপাড়া উপজেলা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক ও টুঙ্গিপাড়া পৌর সভার মেয়র শেখ আহম্মেদ হোসেন মির্জা জানিয়েছেন, সম্মেলনকে সফল করতে প্রতিটি ইউনিয়নে মাইকিং, গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ব্যানার ফেস্টু টাঙ্গানো হয়েছে। সম্মেলনে আগত নেতাকর্মীদের দুপুরে খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে কোটালীপাড়া উপজেলা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান হাওলাদার বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকা কোটালীপাড়ায় সম্মেলন হচ্ছে। এতে দলের সাধারণ সম্পাদকসহ জাতীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। সেই সাথে কোটালীপাড়ার হাজার হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থক সম্মেলনে আসবেন। সেসব কথা চিন্তা করে বিশালাকৃতির প্যান্ডেল, পানি ও দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহম্মদ সাইদুর রহমান খান কালের কণ্ঠকে বলেন,কোটালীপাড়া ও টুঙ্গিপাড়া উপজেলার সম্মেলনকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীরা রাতদিন কাজ করছে। সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ জাতীয় নেত্রীবৃন্দ এসব সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন। তাদের নিরাপত্তাসহ সম্মেলন যাতে সুষ্ঠভাবে সম্মপন্ন হয় সেই জন্য আইন-শৃংখলা বাহিনী কঠোর রয়েছে।ৃ

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.