Wednesday, September 30

আজ চট্টগ্রামে সবুজ আন্দোলনের ২য় প্রতিষ্টা বার্ষিকী ও বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত

0

চট্টগ্রামের চান্দঁগাঁও বোর্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আজ(বুধবার) বিকাল ৩টায় সবুজ আন্দোলনের ২য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপনে আলোচনা সভা, কেক কাটা, বৃক্ষরোপন কর্মসূচী সুবজ আন্দোলনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম জেলা শাখার আহবায়ক সাংবাদিক কাজী হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে ও যু্গ্ম আহবায়ক উৎপল আজীজের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ড. এমদাদ হোসেন, আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ডা. মাহতাব হোসাইন মাজেদ, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ বিষয়ক সম্পাদক, সবুজ আন্দোলন, চট্টগ্রাম জেলা শাখার মোঃ সাদেক উপদেষ্টা  ও জেলা আহবায়ক কমিটির সদস্য সচীব সুলতানা আয়শা, জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক ইন্জিনিয়ার রফিকুল আলম, যুগ্ম আহবায়ক উৎপল আজিজ, যুগ্ম আহবায়ক এম এ রহিম, যুগ্ম আহবায়ক নুরুল কবির, যুগ্ম আহবায়ক সোনিয়া আজাদ, অর্থ সচীব, রাশেদুল আজিজ, সাংবাদিক বাবুল মিয়া বাবলা, সদস্য মুনা নারগিছ, সদস্য আব্দুল কাদের ও চান্দগাও বোর্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এম এ বাহাদুর,
সীতাকুণ্ড থানা শাখার আহবায়ক, সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, মুহা.ইব্রাহিম চৌধুরী খোকন, শ্রী বিদুৎ আর্চায্য, মু. বখতিয়ার চৌধুরী, মু হাসান মুরাদ, তৌহিদ খান।
অনুষ্ঠানে প্রধাণ বক্তা  ড. এমদাদ হোসেন বলেন, পৃথিবীতে বৃক্ষ লাগানো বা সবুজায়নের কোন বিকল্প নেই। জলবায়ুর দোষণ রোধ করা হলো আমাদের জীবনের প্রধান কাজ। আর গাছের সাথে অক্সিজেনের সম্পর্ক। অক্সিজেন ছাড়া আমরা বাচবোনা। আর সেই গুরুত্বপূর্ন অক্সিজেন সরবরাহ করে এক একেকটি মুল্যবান গাছ। কারন এটা আমাদের বেরিয়ে যাওয়া কার্বন ডাই অক্সাইড শোষন করে। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে।তাই গাছ বেশী বেশী লাগাতে হবে। সকলকে সবুজ আন্দোলনের পাশে থাকতে হবে।
সবুজ আন্দোলনের কার্য নির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক কাজী হুমায়ুন কবির সভাপতির বক্তব্যে বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত পরিবেশ দুষণ করে যাচ্ছি। বায়ুমন্ডলকে করছি ক্ষতিগ্রস্থ। নদীগুলো ভরাট করে দখল বানিজ্য করে পানিকে বাধাগ্রস্থ করছি। তাই আজ জলাবদ্ধতা সহ অনেক মহামারী এগিয়ে আসছে। তাই সবুজহীন পৃথিবী কল্পনা করা যায়না। গাছহীন মানবপ্রজাতি ধ্বংস হয়ে যাবে। নিজের জীবন ও পরিবেশের বিপর্যয় ঠেকাতে নিজের বাড়ির আঙিনায় মাসে অন্তত একটি গাছ লাগাই।

সবুজ আন্দোলনের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মাজেদ হোসেন বলেন, বনায়ন উজার ও অপরিকল্পিত বৃক্ষ নিধণে পৃথিবীতে বন্যা, খড়া ও বিভিন্ন রোগের উপদ্রব হয়। যাতে মানব সভ্যতা হুমকির মুখে পড়ে। তাই বৃক্ষ রোপনের গুরুত্ব অনুভব করে একটি করে গাছ লাগাই। জীবন বাচাই।
সবুজ আন্দোলনের সদস্য সচীব সুলতানা আয়শা বলেন,দেশ রক্ষা করার জন্যে সবুজ আন্দোলনের গুরুত্ব অপরিসীম । পাহাড় , নদী, গাছ এগুলো একে অপরের সাথে নিবিড় সমর্পক। তাই প্রতিটিকে বাঁচাতে হবে , সবাই কে একাজে হাত দিতে হবে ।

সবুজ আন্দোলনের যুগ্ম আহবায়ক রফিকুল আলম বলেন, যেভাবে বৃক্ষ কর্তন ও কালো ধোয়ার উৎপাদন, পানি দূষন, খাদ্য দূষন হচ্ছে এতে ভবিষ্যতে আমাদের জীবন ধারণ কঠিন হয়ে পড়বে। সবুজায়ন ছাড়া এখন আর আমাদের অন্য কিছু ভাবাই যায়না।

সবুজ আন্দোলনের যুগ্ম আহবায়ক নুরুল কবির বলেন, সবুজ আন্দোলনকে আমি মন থেকে গ্রহন করেছি। কারন এর মাধ্যমে আমরা বিশ্বায়নের দূষণ নিয়ে কথা বলতে পারবো।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.