আজ চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা করবেন মমতা

0
Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

ভারতের নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। দলগুলোর মধ্যে শুরু হয়েছে তাদের প্রার্থী বাছাই প্রক্রিয়া। আজ মঙ্গলবার বিকেলে কালীঘাটের দলীয় কার্যালয়ে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের বৈঠক রয়েছে। সেই বৈঠক শেষে সাংবাদিক সম্মেলন করবেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্য দলগুলোও তাদের প্রার্থী ঘোষণা করতে পারে দু-একদিনের মধ্যে বলে জানা গেছে।

তৃণমূলের নির্বাচনি প্রস্তুতি এবং ব্যবস্থাপনা দেখভালের জন্য যে ১২ জনের কমিটি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গড়ে দিয়েছিলেন, ৪২ আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের নামের তালিকা সেই কমিটির হাতে এখন তৈরি। তবে তালিকা চূড়ান্ত নয়। কারণ বেশ কয়েকটি আসনের জন্য একাধিক নাম উঠে এসেছে বলে তৃণমূল সূত্রের খবর। সে সব আসনের জন্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন চেয়ারপার্সন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকাতেও চূড়ান্ত সিলমোহরটা তিনিই দেবেন এবং সেই সিলমোহর পড়বে কালকের বৈঠকে।

কালীঘাটে তৃণমূলের ওই বৈঠক শুরু হবে মঙ্গলবার দুপুর ১টায়। ১২ জনের কমিটির বৈঠকটি ডেকেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ডেকেছেন জেলা সভাপতিরদেরও। বৈঠকে প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত হয়ে গেলে ওই দিন বিকেল সাড়ে তিনটেয় সাংবাদিক সম্মেলন করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হবে কি না, তা অবশ্য স্পষ্ট নয়।

রাজ্যের ৪২টি লোকসভা আসনের মধ্যে ৩৪টি-ই গতবার তৃণমূলের দখলে ছিল। কিন্তু সেই ৩৪ সাংসদের প্রত্যেকেই যে এ বার টিকিট পাচ্ছেন, এমনটা ভাবার পরিস্থিতি আর নেই বলে তৃণমূলের বিভিন্ন শ্রেণির নেতাকর্মীদের সূত্রে। ২০১৪ সালে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় সেলিব্রিটিদের যে দাপট দেখা গিয়েছিল, এ বার তেমনটা না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। রাজনৈতিক প্রার্থীর সংখ্যা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ বার বাড়াতে চাইছেন বলে তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছিল আগেই। সেই নীতিই শেষ পর্যন্ত অনুসৃত হচ্ছে, ফলে বিদায়ী সাংসদদের বেশ কয়েকজন এ বার টিকিট পাচ্ছেন না বলে শোনা যাচ্ছে।

২৫ ফেব্রুয়ারি নজরুল মঞ্চে তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে, কয়েকটি আসনে দলের মুখ এ বার বদলাতে পারে। তবে দল কাউকে অসম্মান করবে না, যাঁরা টিকিট পাবেন না, তাঁদের সম্মানজনক পুনর্বাসনই যে হবে, সে ইঙ্গিতও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নজরুল মঞ্চ থেকেই দিয়েছিলেন।

রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের আসনগুলিতেই তৃণমূলের তালিকায় এ বার সবচেয়ে বেশি রদবদল থাকতে পারে বলে খবর। ওই অঞ্চলে অন্তত ৬টি আসনে তৃণমূলের তরফে এ বার নতুন প্রার্থী থাকবেন বলে খবর। তার মধ্যে বিষ্ণুপুর এবং এবং বোলপুর আসনও রয়েছে। ওই দুই আসন থেকে যাঁরা গত বার জিতেছিলেন তৃণমূলের টিকিটে, এখন তাঁদের সঙ্গে দলের কোনও সম্পর্ক আর নেই।

এ ছাড়া দক্ষিণবঙ্গের গোটা চারেক আসনে তৃণমূলের প্রার্থী বদল হওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে জল্পনা রয়েছে রাজ্যের রাজনৈতিক শিবিরে। বেশ কয়েকজন বিধায়ককে এ বার সংসদে যাওয়ার টিকিট দেওয়া হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে। তবে তৃণমূল সূত্রের খবর, যে সাংসদরা গোটা মেয়াদটাই নিজেদের এলাকায় যথেষ্ট সময় দিয়েছেন এবং কাজ করেছেন, যাঁদের নিয়ে বড় কোনও বিতর্ক তৈরি হয়নি এবং দলের অভ্যন্তরীণ সমীকরণ যাদের জন্য খুব একটা নেতিবাচক নয়— তারা প্রত্যেকেই টিকিট পেয়ে যাবেন এ বারও।

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার।

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.