আমি কোরআন শিখেছি, পড়তেও পাড়ি, কিন্তু কাগজে-কলমে তো মুসলিম হয়নি’

0

ঢালিউড চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। ইন্ডাষ্ট্রির সুপারস্টার হিরো শাকিব খানের সঙ্গে জুটি হয়ে তিনি উপহার দিয়েছেন অসংখ্য হিট সিনেমা। এক সময়ের পর্দা কাঁপানো এই জুটি বাস্তব জীবনেও জুটি বাঁধেন বিয়ের মন্ত্র পড়ে। সেই সময় অপু বিশ্বাস নিজের ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। কিন্তু ইদানিং বিভিন্ন মহলে অভিনেত্রীর ‘ধর্ম’ পালন নিয়ে নানান ধরনের কথা উঠেছে। এবার গণমাধ্যমে সেই সব নানান প্রশ্নের জবাব দিলেন ঢাকাই সিনেমার এক সময়ের জনপ্রিয় এই নায়িকা।

বিচ্ছেদের পর বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে অপু বিশ্বাস বলেছিলেন, ‘আমি একজন সনাতন ধর্মের মেয়ে ছিলাম। কিন্তু শাকিব খানকে বিয়ে করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছি। এখন ডিভোর্সের পর আমার যদি অপশন থাকতো তাহলে হয়তো আমি আবার সনাতন ধর্মে ফিরে যেতাম। কিন্তু এখন আমার সন্তান, সেই আমার সবচেয়ে বড় অপশন। তাই আমি আমার ছেলের জন্য ইসলাম ধর্মই পালন করবো।’

তবে এবার নিজের ধর্ম পালন প্রসঙ্গে গণমাধ্যমে ভিন্ন কথা বলেছেন অপু। তিনি বলেন, ‘সব ধর্মের প্রতি আমার শ্রদ্ধা রয়েছে। তাদের সঙ্গে থাকতে গিয়ে আমি চেয়েছিলাম সারা জীবন অবশ্যই তাদের সম্মান দিয়ে যাব। যেহেতু অল্প সময়ের মধ্যে অনেক কিছু (বিয়ে-বিয়ে বিচ্ছেদ) হয়ে গেছে, তার জন্য আমাকে তো আর কাগজ কলমে তারা কিছু করেননি, সে প্রমাণও তাদের কাছে নাই। আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করেছিলাম (ইসলাম ধর্মের কথা), আমি এখনও করি। কিন্তু আমার বাবা-মার সঙ্গে থেকে তো আমি ওটা করতে পারি না।’

অপু আরও বলেন, ‘সামনে আমার একটা ভালো পরিকল্পনা আছে পারিবারিকভাবে। এতদিন নিজের পরিকল্পনায় চলেছি, এবার বাড়ির কথামতো চলতে হবে। কাগজে-কলমে, মনে প্রাণে বা গরুর মাংস খেয়ে বা হজ্ব করে আমি নিজে মুসলিম হইনি। একজনকে ভালোবেসে মুসলিম ধর্মকে সম্মান দেখিয়েছি, আজও দেখাই। সব ধর্মের প্রতি আমার সম্মান ও শ্রদ্ধা আছে।’

পাশাপাশি অপু আরও জানান, ‘আমার যখন শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে তখন আমি এক ঝলক কাবিননামা দেখে পরে আর তার কোনো হদিস পাইনি। আদালতের মাধ্যমে যেভাবে ধর্মান্তর করা হয় আমার বেলায় সে রকম কিছুই হয়নি। ঈদ এবং ইসলাম ধর্মের প্রতি আমার যথেষ্ট সম্মান রয়েছে। কিন্তু আমার কখনো ঈদ উদযাপন করা হয়নি। কোরবানি ঈদ থেকে শুরু করে কোনো ঈদে কোনোদিন কিংবা এখনও আমি গো-মাংস স্পর্শ করিনি। আমার বাসার কাজের লোকদের জন্য আমি খাসি কোরবানির ব্যবস্থা করি।’

কোরআন শিক্ষার বিষয় নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি কোরআন শিখেছি, এখনও জানি, আমি পড়তেও পাড়ি। কিন্তু আমার তো (ইসলাম ধর্ম পরিবর্তন) কাগজে-কলমে হয়নি।’
বিভিন্ন মহলে ধর্ম পালন নিয়ে গুঞ্জন প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি ওই ধর্মেই (হিন্দু ধর্ম) আছি। আমি পূজা করবো এবার, দূর্গাপূজা করবো এবার। আমি বরাবরই করে আসছি।’

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিয়ে হয়। এরপর ২০১৬ সালে ১০ এপ্রিল একটি টেলিভিশন চ্যানেলে ছয় মাস বয়সের ছেলে আব্রাম খান জয়কে সঙ্গে নিয়ে বিয়ে ও সন্তানের ব্যাপারে প্রথম মুখ খোলেন অপু।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.