ওয়ারীতে শিশু হত্যার ঘটনায় মামলা, আটক ৬

0
Want create site? Find Free WordPress Themes and plugins.

রাজধানীর ওয়ারীতে সাত বছরের শিশু সামিয়া আফরিন সায়মার নিখোঁজের পর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা হয়েছে। শনিবার সকালে শিশুটির বাবা আব্দুস সালাম অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে ওয়ারি থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির নিরাপত্তা প্রহরীসহ ছয়জনকে আটক করেছে।

পুলিশের ওয়ারী জোনের সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ সামসুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। সন্দেহভাজন কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত এখনও চলছে।

এর আগে রাজধানীর ওয়ারীতে শুক্রবার সন্ধ্যায় সামিয়া আফরিন সায়মা (৭) নামের এক কন্যা শিশু নিখোঁজ হয়। এর কয়েক ঘণ্টা পর ওই ভবনের ৯ তলার একটি খালি ফ্লাটে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। তার মুখে ও গলায় রক্তের দাগ রয়েছে। শিশু সামিয়া রাজধানীর সিলভারডেল স্কুলের ছাত্রী ছিল। তার বাবার নাম আব্দুস সালাম। পুলিশ ধারনা করছে শিশুটিকে ধর্ষণ বা যৌন নির্যাতনের পর হত্যা করা হয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আব্দুস সালামের ২ মেয়ে ও ২ ছেলে। শিশু সামিয়া সবার ছোট। আব্দুস সালাম পরিবার নিয়ে ওয়ারীর বনগ্রাম মসজিদ রোডের ১৬৯ নম্বর বহুতল ভবনের ৬ষ্ঠ তলায় থাকেন। গতকাল শুক্রবার মাগরিবের নামাজের সময় সামিয়া নিখোঁজ হয়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর ওই ভবনের ৯ম তলার একটি ফাকা ফ্ল্যাটে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে থানায় খবর দেয়া হলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে। এরপর খবর পেয়ে সিআইডির একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে হত্যার প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছে।

ওয়ারী থানার ওসি আজিজুর রহমান ইত্তেফাককে বলেন, নিহতের শরীরে পাশবিক নির্যাতনে আলামত রয়েছে। তার গলায় এবং মুখে জোর জবর দস্তির চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করছে। ময়নতন্ত ও সুরাতহাল প্রতিবেদনের পর বলা যাবে শিশুটি ধর্ষণের শিকার হয়েছে কিনা। তবে ঘটনাস্থলে থাকা একাধিক পুলিশ সদস্য বলছে শিশুটি যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে।

Did you find apk for android? You can find new Free Android Games and apps.

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.