খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসক পরিদর্শনে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত শার্শা উপজেলা

0

বেনাপোল প্রতিনিধি: ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিভাগীয় কমিশনার,খুলনা ড. মুঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার ও যশোরের জেলা প্রশাসক মোহম্মাদ শফিউল আরিফ ঘূর্ণিঝড় উপদ্রুত উপজেলা শার্শা পরিদর্শন করেন।

এসময় ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা, ভেঙ্গে যাওয়া ঘর-বাড়ি, ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাসহ ক্ষয়-ক্ষতির সাম্যক ধারণা গ্রহণ করেন। এসময় ক্ষতিগ্রস্ত ঘরচাপা পড়ে নিহত টেংরার মুক্তার আলি ও শার্শার মালোপাড়ার গোপাল বিশ্বাসের (৬৫)পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার ও অন্যান্য খাদ্য সামগ্রী (চাল, ডাল, আলু, তেল ইত্যাদি) বিতরণ করা হয়।

এসময়উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল,স্বস্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ ও মেম্বরা সেসময় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকালে আম্পান তান্ডবের মধ্যে যশোরের শার্শায় গাছ ও ঘর চাঁপা পড়ে নিহত চার পরিবারের হাতে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক তুলে দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল প্রতিটি বাড়ি গিয়ে স্বজনদের হাতে ২০হাজার টাকার চেক, নগদ টাকা ও ত্রান সামগ্রী তুলে দেন।

পুলক কুমার মন্ডল বলেন,নিহত চারজনের মধ্যে উপজেলার সামটা গ্রামের আব্দুর গফুর পলাশীর বড় ছেলে মুক্তার আলি (৬৫) ও গোগা গ্রামের শাহাজান আলির স্ত্রী ময়না খাতুন (২৫) গাছ চাপা পড়ে এবং উপজেলা সদরের শার্শা গ্রামের মালো পাড়ায় প্রয়াত সুনিল বিশ্বাসের ছেলে গোপাল বিশ্বাস(৬৫) ও মহিষাকুড়া গ্রামের মোবারক আলির ছেলে মিজানুর রহমান(৬৪) ঘর চাপা পড়ে মারা যায়।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.