ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে মেথি চা

0

মেথি সাধারণত আমরা মশলার উপকরণ হিসাবে জানি। কিন্তু ভেষজ চিকিৎসায় মেথি বীজ বেশ ব্যবহার হয়। কারণ এর রয়েছে নানা গুণ। মেথি ওজন কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। চায়ের সঙ্গে খেলে যেমন ওজন কমে তেমনি কোষ্ঠকাঠিন্যও দূর করে। ডায়াবেটিসের মতো রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে মেথি অত্যন্ত কার্যকরী।

মেথি চা আমাদের কাছে নতুন মনে হতে পারে। আসলে মশলা চা যেরকম মেথি চাও ঠিক সে রকম। মশলা যেভাবে গুড়ো করে নিতে হয় মেথিও তেমনি গুড়ো করে নিন। ফুটন্ত পানিতে এই গুঁড়া মিশিয়ে দিন। এর সঙ্গে সামান্য মধুও মেশাতে পারেন। চা পাতার সঙ্গে তুলশী পাতাও দিতে পারেন। এসব উপকরণ দিয়ে পাঁচ মিনিট ফুটিয়ে নিন। এবার ছেঁকে নিয়ে চা যেমন ভাবে খান তেমনি ভাবে মেথি চা খাবেন।

এবার জেনে নিন মেথি চায়ের উপকারিতা :
১. ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ রাখে : সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে মেথি চা অত্যন্ত কার্যকরী। পুষ্টিবিদদের মতে, শরীরে ইনসুলিনের কার্য ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে মেথি চা। তাই নিয়মিত মেথি চা খেলে ডায়াবেটিসের মতো রোগ সহজেই দূরে সরিয়ে রাখা সম্ভব।
২. কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে : অ্যাসিডিটি বা হজমের যাবতীয় সমস্যা সহজেই নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে মেথি চা। এ ছাড়াও মেথিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার যা পেট পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।
৩. কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখে : প্রতিদিন সকালে খালি পেটে মেথি চা খেলে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকবে। এর ফলে শরীরের হৃদযন্ত্র ভাল থাকবে। হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিও কমবে।
৪. ওজন কমায় দ্রুত : শরীরের অতিরিক্ত ওজন দ্রুত কমাতে মেথি চায়ের জুড়ি মেলা ভার। সকালে খালি পেটে এক কাপ মেথি চা নিয়মিত খেতে পারলে বাড়বে হজম ক্ষমতা একই সঙ্গে ঝরবে শরীরের মেদও।
৫. কিডনিতে পাথর হওয়া দূর করে : প্রতিদিন সকালে খালি পেটে মেথি চা খেতে পারলে কিডনি পরিষ্কার থাকবে। এর ফলে কিডনিতে পাথর হওয়ার আশঙ্কা কমে যাবে।
তথ্যসূত্র : ভারতীয় গণমাধ্যম

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.