Monday, August 8

দেশে প্রায় আটশতাধিক অনিবন্ধিত বেসরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্র বন্ধ হল

0

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বেধে দেয়া অনিবন্ধিত বেসরকারি সব স্বাস্থ্যকেন্দ্র বন্ধের সময়সীমা শেষ হলেও অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন । ২৬ তারিখ থেকে শুরু হওয়া এই অভিযানে দেশের প্রায় ৯ শতাধিক প্রতিষ্ঠান বন্ধের পাশাপাশি অনেক প্রতিষ্ঠানকে আর্থিক জরিমানাও করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বলছে এই সময়ে পরিচালিত অভিযানে সবচেয়ে বেশি অনিবন্ধিত প্রতিষ্ঠান পাওয়া গেছে চট্টগ্রামে। এরপর খুলনা ও তৃতীয় অবস্থানে ঢাকা। তথ্য অনুযায়ী, চট্টগ্রামে ২২৯টি, খুলনার ২০৪টি, ঢাকার ১৬৭টি, ময়মনসিংহে ৯৬টি, রাজশাহীতে ৭৮টি, বরিশালে ৫৩টি, সিলেটে ৩৫টি আর রংপুরে ১৪টি বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ব্লাড ব্যাংক বন্ধ করা হয়েছে। মোট ৮৮২টি প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে।

অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ডা. মো. বেলাল হোসেন বলেন, এই অভিযান চলবে। তবে ৭২ ঘণ্টার যে ক্র্যাশ প্রোগ্রাম ছিলো তেমন ম্যাসিভ আকারে হয়তো অভিযান হবে না। কিন্তু আমাদের স্বাভাবিক কার্যক্রমের পাশাপাশি এটিও চলবে। যাতে করে অনিবন্ধিত ও অনিয়মের দায়ে দ-িত প্রতিষ্ঠানগুলো আবার গড়ে না ওঠে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তালিকায় বন্ধ হওয়া সব ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টারের তথ্য রয়েছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভোক্তা অধিদপ্তরের সঙ্গে আমাদের এ বিষয়ে কোনো কথা হয়নি। তারা তাদের মত করে অভিযান চালিয়েছে। ঢাকার বাইরে সিভিল সার্জনদের নেতৃত্বে এবং রাজধানীতে অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে ৩টি টিম কাজ করেছে।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.