নওগাঁয় যুব-ছাত্রদল ও তরুণদের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ

0

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, নওগাঁ প্রতিনিধি: সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও ভয়াবহ রুপ নিয়েছে করোনা ভাইরাস। মরণঘাতী এ ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে ঘরবন্দি হয়ে আছে মানুষ। প্রশাসনের তরফ থেকে করোনা মোকাবিলায় সচেতনতামুলক প্রচার-প্রচারণা করা হচ্ছে। করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে শ্রমজীবীরা। খেটে খাওয়া এসব মানুষ এখন নিরুপায় হয়ে হাত গুটিয়ে বাড়িতে বসে আছেন।

‘এখনই সময় মানুষ মানুষের পাশে দাঁড়ানো’ ¯স্লোগানে নওগাঁয় অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রি বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার রাত ৮টায় নওগাঁ শহরের বিভিন্ন মহল্লায় ‘যুব-ছাত্র এবং তরুণদের’ উদ্যোগে অসহায়দের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রান পৌছে দেয়া হয়েছে। ত্রাণের সাথে করোনা সচেতনতামুলক প্রচারপত্র বিলি করা হয়েছে।

নওগাঁ জেলা যুবদলের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ও ত্রাণ পরিচালনা কমিটির আহবায়য়ক মো: কবির আলম (লিটন) এর নেতৃত্বে জেলা ছাত্রদলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ও ত্রান পরিচালনা কমিটির যুগ্ম আহবায়ক সোহাগ আলী, সহ-সাধারন সম্পাদক নাফিউল ইসলাম নাফিজ এবং ত্রাণ পরিচালনা কমিটির সদস্য জয়, রাসেল, শাহিন, রফিক, সাগর, মান্নান এবং মুহিদ প্রায় দেড়শতাধিক অসহায়দের বাড়িতে ত্রাণ সামগ্রি দেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, শহরের ডিগ্রি মোড় সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুদিক (খুশি)।

নওগাঁ শহরের বাঙ্গাঁবাড়িয়া মহল্লার কলেজপাড়ার গৃহবধু আকলিমা বলেন, ছাত্রাবাসে কাজ করেন। প্রায় মাসখানেক হতে চললো কলেজ বন্ধ। ছাত্ররা সবাই বাড়ি গেছে। ঘরে যা একটু খাবার ছিল শেষ। সরকার বা পৌরসভা থেকে এখনো কোন ত্রান দেয়া হয়নি। রাত ৮টার দিকে বাড়ি এসে ডিগ্রীর মোড়ের ছেলেরা ৫ কেজি চাল দিয়ে গেছে।

নওগাঁ জেলা যুবদলের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ও ত্রাণ পরিচালনা কমিটির আহবায়ক মো: কবির আলম (লিটন) বলেন, আমরা রাতের আঁধারে অসহায়দের বাড়িতে ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছি। অনেক পরিবার আছে যারা এখনো ত্রান পাইনি। আমরা সাধ্যের মধ্যে চেষ্টা করেছি ত্রাণ দেয়ার। একটি ছোট পরিবার এক সপ্তাহ চলে যাবে। এছাড়া করোনা পরিস্থিতিতে আমরা মানুষদের সচেতন করছি ঘরের বাহিরে বের না হয়ে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ থাকার জন্য।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.