প্রস্তুত জল্লাদের একটি দল, যেকোনো সময় কার্যকর হতে পারে মাজেদের মৃত্যুদণ্ড

0

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদের সঙ্গে দেখা করতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে যান তার স্বজনরা।

আজ শুক্রবার তার পরিবারের সদস্যরা কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে যান বলে কারা কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করে।

শুক্রবার বিকাল ৫টা ১৮ মিনিটে কারাগারে প্রবেশে করেন মাজেদের স্ত্রী সালেহা বেগম, তার চাচা শ্বশুর ও শ্যালকসহ পাঁচজন। সন্ধ্যা ৭টা ২৪ মিনিটে তারা কারাগার থেকে বের হয়ে যান।

একটি সূত্রে জানা যায়, কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ফাঁসির মঞ্চটি সম্পূর্ণরূপে প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রস্তুত রয়েছে জল্লাদের একটি দল। যেকোনো সময় কার্যকর হতে পারে আবদুল মাজেদের মৃত্যুদণ্ড।

২৩ বছর ধরে পলাতক থাকলেও গত ৬ এপ্রিল মধ্যরাতে রাজধানী থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ৮ এপ্রিল মৃত্যুর পরোয়ানা পড়ে শোনানোর পর সব দোষ স্বীকার করে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চান আবদুল মাজেদ। প্রাণভিক্ষার আবেদনটি নাকচ করে দেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। প্রাণভিক্ষার আবেদন রাষ্ট্রপতি বাতিল করে দেয়ার পর সেই চিঠিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছায়। কারাবিধি অনুযায়ী পরবর্তী কার্যক্রম চলবে।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.