মাইক্রোসফটের পরিচালনা পর্ষদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন বিল গেটস

0

মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস  মাইক্রোসফটের পরিচালনা পর্ষদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন বিল গেটস। এতে তিনি আরও বেশি সময় দাতব্য কর্মকাণ্ডে দিতে পারবেন।

বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, বিল গেটস  এখন বৈশ্বিক স্বাস্থ্য ও উন্নয়ন, শিক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তনের সমস্যা সমাধানের বিষয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে চান।বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী বিল গেটস মাইক্রোসফটের পাশাপাশি ওয়ারেন বাফেটের বার্কশায়ার হ্যাথওয়ের পরিচালনা পর্ষদ থেকেও সরে দাঁড়াচ্ছেন।

মাইক্রোসফটের পরিচালনা পর্ষদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার মাধ্যমে মাইক্রোসফটে এক যুগ ধরে দৈনন্দিন কাজে তাঁর যে ভূমিকা, তা আর থাকবে না। তবে তিনি বলেছেন, এ কোম্পানি তাঁর জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে থাকবে। এর নেতৃত্বে যাঁরা থাকবেন, তাঁদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখবেন।বিল গেটস বলেছেন, ‘বন্ধুত্ব এবং অংশীদারত্ব বজায় রাখার একটি সুযোগ হিসেবে পরবর্তী ধাপের জন্য অগ্রসর হচ্ছি, যা আমাকে সঠিকভাবে তুলে ধরে। বিশ্বের কয়েকটি কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমার প্রতিশ্রুতি কার্যকরভাবে অগ্রাধিকার দিচ্ছি।’

পার্সোনাল কম্পিউটার বা পিসির জন্য সফটওয়্যার তৈরি করে বিল গেটস তাঁর সম্পদ অর্জন করেন। তরুণ বয়সে কলেজ থেকে ঝরে পড়া বিল গেটস মেক্সিকোতে বন্ধু পল অ্যালেনকে নিয়ে মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠা করেন। ২০১৮ সালে মারা যান পল অ্যালেন। ১৯৮০ সালে আইবিএমের সঙ্গে চুক্তি করার পর মাইক্রোসফটের জন্য বড় সুযোগ আসে। ওই সময় এমএস-ডিওএস অপারেটিং সিস্টেম তৈরি করে মাইক্রোসফট। ১৯৮৬ সালে পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি হয় মাইক্রোসফট। বিল গেটস হয়ে যান তরুণ বিলিয়নিয়ার।

২০০৪ সাল থেকে বার্কশায়ার বোর্ডে যুক্ত হন তিনি। তবে তাঁর অধিকাংশ সময় দেন স্ত্রীর সঙ্গে প্রতিষ্ঠা করা বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনে।

দ্য ক্রোনিকেল অব ফিলানথ্রফি পক্ষ থেকে ২০১৮ সালে তাঁদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সর্বাধিক উদার মানবহিতৈষীর খেতাব দেওয়া হয়।

ফোর্বসের তালিকা অনুযায়ী, বিল গেটস বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধনী। তাঁর আগে আছেন কেবল আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস। গেটসের সম্পদের পরিমাণ ১০৩ দশমিক ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.