৩৯তম বিশেষ বিসিএসে উত্তীর্ণদের থেকে দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগের চিন্তা সরকারের

0

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বাড়তে থাকায় দ্রুত চিকিৎসক নিয়োগের উদ্যোগে ৩৯তম বিশেষ বিসিএসে উত্তীর্ণদের থেকে আরও দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগের চিন্তা করছে সরকার।

জানা গেছে, ৩৯তম বিশেষ বিসিএসে পিএসসি থেকে ৪ হাজার ৭৯২ চিকিৎসক নিয়োগের সুপারিশ করা হয়। ওই বিসিএসে উত্তীর্ণ ৮ হাজার ৩৬০ জনের নাম ঘোষণা করা হয়। সুপারিশ পাওয়ার পর অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া সম্ভব বলে মনে করে পিএসসি।

এ প্রসঙ্গে পিএসসি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক জানান, নতুনভাবে চিকিৎসক নিয়োগ দিতে গেলে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, কয়েক দফা পরীক্ষার আয়োজন করতে হবে, যা সময়সাপেক্ষ। সেই অবস্থাও এখন নেই। দেশে এখন চিকিৎসক সংকট। এ বিশেষ সংকটের সময় জাতীয় স্বার্থের কথা বিবেচনা করে ৩৯তম বিশেষ বিসিএসের অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে মেধার ভিত্তিতে ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া সম্ভব। তারা সবাই পররীক্ষিত। সবাই পাস করেছেন। পদ কম থাকার কারণে আমরা তাদের নিয়োগের সুপারিশ করতে পারিনি, তাই অপেক্ষমাণ তালিকায় রেখেছি। সরকার এখন ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ করতে চাইলে আমাদের সেই প্রস্তুতি আছে।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব হাবিবুর রহমান খান বলেন, আমরা দ্রুত চিকিৎসক নিয়োগের কাজ শেষ করতে চাই। ৩৯তম বিশেষ বিসিএসের অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়ার বিষয়ে কাজ করছে সরকার। জানা গেছে, চিকিৎসকদের সংগঠন বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) ৩৯তম বিশেষ বিসিএস থেকে নতুন চিকিৎসক নেওয়ার পক্ষে মত দিয়ে ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোতে চিঠি দিয়েছে।

করোনা ভাইরাসের বিস্তারের পর চিকিৎসক সংকটের কারণে আক্রান্তদের চিকিৎসা ও অন্যান্য রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতালগুলো। এ অবস্থায় পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য নতুন ২ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের উদ্যোগ নেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে ১০ এপ্রিল ৩৯তম বিশেষ বিসিএসের আবেদন কার্যক্রম শুরু হয়, শেষ হয় ৩০ এপ্রিল। পরে ওই বছরের ৩ আগস্ট এই বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৩৭ হাজার ৫৮৩ জন অংশ নেন। পরীক্ষায় পাস করেন ১৩ হাজার ৭৫০ চিকিৎসক। এর মধ্যে সহকারী সার্জন পদে ১৩ হাজার ২১৯ চিকিৎসক ও ৫৩১ জন সহকারী ডেন্টাল সার্জন পদে উত্তীর্ণ হন।

 

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.